মোবাইল থেকে ইনকাম করার ২ টি সহজ মাধ্যম

2easy ways to earn income from mobile

আপনি কি অনলাইনে পার্ট টাইম বা ফুল টাইম টাকা ইনকাম করতে চান, তাহলে আর দেরি নয় আমাদের কনট্রেন গুলো ভালভাবে পড়ে নিন। যদি অনলাইনে ইনকাম করতে চান,তাহলে আপনার ওই অ্যান্ড্রয়েড স্মার্টফোন মোবাইল আপনাকে পতিমাসে মিনিমাম কমপক্ষে ১৫ থেকে ২০ হাজার টাকা আয় করে দিতে পারবে , শুধু আপনার একটু পরিশ্রম। যদি আপনি একটু কষ্ট করেন ও একটু পরিশ্রমী হন, তাহলে আপনি অনলাইনে ইনকাম করতে পারবেন।

 

হ্যাঁ এটাই একদম সত্যি কথা । আজ টেকনোলজি এত ফাস্ট হয়েছে ,যে এন্ড্রয়েড মোবাইল দিয়ে টাকা আয় করা এখন একটা ফ্যাশন হয়ে উঠেছে আজকাল সারাবিশ্বে। মোবাইল থেকে অনলাইনে ইনকাম করার এমনিতেই অনেক উপায় আছে ও বের হয়েছে, যা আমরা এখনো অনেকেই জানিনা। তাই কিভাবে এন্ড্রয়েড ফোন দিয়ে অনলাইনে ইনকাম করবেন তা সব কিছু আলোচনা করব।

কিন্তুু এই পোস্টে আমি আপনাকে ২ টি সহজ উপায় বলব যা আপনাদের,যেগুলো সত্যিই আপনাকে অ্যান্ড্রয়েড স্মার্টফোন মোবাইল দিয়ে ইনকাম করার সুযোগ করে দিবে অনলাইনে। তাই আমাদের কনট্রেন গুলো ভালো করে পড়ে নিন কিভাবে মোবাইল দিয়ে ইনকাম করা যায়।

পোস্টটি শুরু করার আগে আমি আপনাকে জোর দিয়ে বলতে পারি যে , অ্যান্ড্রয়েড স্মার্টফোন মোবাইল দিয়ে টাকা আয় করার যেগুলি অনলাইন উপায় আমি আপনাকে বলব, সেই গুলি কাজে লাগিয়ে আজ অনেকেই অনলাইনে আনলিমিটেড টাকা ইনকাম করে আসছে অনেকেই হয়তো আপনি জানেন না।

আপনিও অ্যান্ড্রয়েড স্মার্টফোন দিয়ে অনলাইনে ইনকাম করতে পারবেন এটা হানড্রেড পারসেন্ট সত্য। কিন্তু একটা কথা আপনি হয়তো অবশ্যই ভালো করে জানেন যে,কষ্ট না করলে কেষ্ট মেলে না অর্থাৎ কষ্ট করলে ভালো কিছু করা সম্ভব হয়। আর তার জন্যই আপনাকেও কষ্ট ও ধৈর্য ধরে অনলাইন থেকে আপনার অ্যান্ড্রয়েড স্মার্টফোন মোবাইল দিয়ে টাকা ইনকাম এর জন্য একটু বেশি পরিশ্রম করতেই হবে।

আমি নিচে অ্যান্ড্রয়েড স্মার্টফোন মোবাইল দিয়ে ইনকাম এর জন্য যে ২ টি উপায় বলব সেগুলি 100% সত্যি এবং অনেকেই ব্যবহার করে হাজার হাজার টাকা ইনকাম করে আসছে । কিন্তুু আমি আপনাকে শুধুমাত্র উপায় গুলো বলে দিব।

কিন্তুু সেই উপায় গুলো ব্যবহার করে আপনি কত টাকা আয় করবেন, সেটা আপনার কাজ আর পরিশ্রম ও শ্রমের উপর নির্ভর করবে। আপনি তো ভালো করে জানেন কষ্ট না করলে কেষ্ট মেলে না। এর জন্য আপনাকে একটু ধৈর্য ধরে কষ্ট করতে হবে। ধৈর্যের ফল অনেক মিষ্টি হয়।

তবে আমি আপনাকে আবারও মনে করিয়ে দিই যে উপায় গুলো এখন আপনাকে বলব, সেই উপায় গুলোকে কাজে লাগিয়ে অনেকেই কিন্তুু লক্ষ লক্ষ হাজার হাজার টাকা ইনকাম করছে , তা হান্ডেট পার্সেন্ট প্রমাণিত চাইলে আপনিও ইনকাম করতে পারবেন । শুধু দরকার আপনার মনবল আর ধৈর্য , আর আপনার পরিশ্রম, তাহলে আপনি সাকসেস অবশ্যই হবেন।

আপনার এন্ড্রয়েড স্মার্টফোন মোবাইল দিয়ে টাকা আয় করার ২টি সহজ উপায় বা মাধ্যম (2easy ways to earn income from mobile)

১। ব্লগিং বা ওয়েবসাইট দ্বারা অনলাইনে ইনকাম

আপনি কি জানেন মোবাইল থেকে একটি ফ্রি ব্লগ বা ওয়েবসাইট বানিয়ে অনলাইনে আনলিমিটেড টাকা ইনকাম করতে পারবেন। যদি না জানেন তাহলে ভালো করে জেনে নিন। বিস্তারিত..

যারা লেখালেখি করতে ভালোবাসেন তাদের জন্য এই অপশনটি ভালো কাজে লাগবে।আপনারা শুধু  ফেসবুক ,মেসেঞ্জার , হোয়াটসঅ্যাপ , ইমোতে  লেখালেখি না করে যদি একটি ব্লগ ওয়েবসাইটে লেখালেখি করেন । তাহলে, আপনি আনলিমিটেড অনলাইনে টাকা ইনকাম করতে পারবেন ।

আপনি প্রথমে আপনার অ্যান্ড্রয়েড স্মার্টফোন দিয়ে গুগলে গিয়ে সার্চ করবেন blogger.com তারপর আপনার একটা জিমেইল দিয়ে সেখানে সাইন আপ করলেই আপনার একটা ফ্রি ওয়েবসাইট তৈরি হয়ে যাবে। তারপর সেখানে সুন্দর সুন্দর কনটেন্ট বা পোস্ট যা মানুষের প্রয়োজন বা মানুষকে আনন্দ দেয় এক কথায় মানুষ যাতে আপনার ওই লেখালেখি বা পোস্ট গুলো পছন্দ করে , এমন কিছু লিখে পাবলিস্ট করতে থাকবেন। আপনি যে বিষয়ে দক্ষ সেই বিষয় নিয়ে কাজ করবেন?

তারপর যখন আপনার ব্লগ ওয়েব সাইটে ভিজিটর বা ট্রাফিক আসা আরম্ভ হবে, ঠিক তখনি আপনি নিজের ব্লক ওয়েবসাইট থেকে অনলাইনে টাকা আয় করা শুরু করতে পারবেন । যা আপনি হয়তো ভাবছেন যে মোবাইল থেকে ব্লক ওয়েবসাইট বানিয়ে ইনকাম করা অনেক কঠিন বা ঝামেলার কাজ। কিন্তু প্রথমে আপনার একটু ঝামেলা মনে হবে তারপরে আপনার কাছে তা ইজি হয়ে যাবে, এর জন্য আপনাকে একটু সময় দিতে হবে, আর ধৈর্য ধরতে হবে।

মোবাইল থেকে আপনার ব্লগ ওয়েবসাইট বানাতে মাত্র ১০ মিনিট লাগবে । আর তারপর আপনি নিজের ব্লগে ভালো ভালো এবং মানুষের প্রয়োজনীয় আর্টিকেল লিখে পোস্ট করলে ব্লগে ভিজিটর ট্রাফিক আনতে পারবেন আপনার ব্লগ সাইটে।

তবে এখানে আপনাকে একটা কথা মাথায় রাখতে হবে , আপনি কোন কপি পোস্ট বা অন্যের কোন লেখা বা কনটেন্ট চুরি করতে পারবেন না চুরি করলে পরে আপনাকে বিপদের মুখে পড়তে হবে কথাটা মনে রাখতে হবে অবশ্যই। অর্থাৎ অন্যের একটি পোস্ট আপনি কপি করে আপনার ব্লগ ওয়েব সাইটে পোস্ট করতে পারবেন না। তাহলে আপনি কখনো আর্নিং করতে পারবেন না অনলাইনে। তাই একটু বুঝে শুনে পোস্ট করতে হবে।

ব্লগ বা ওয়েবসাইটে মোটামুটি অনেক গুলো পোস্ট করা হয়ে গেলে এবং প্রতিদিন ভিজিটর  আশা আরম্ভ হলে আপনার ব্লগ ওয়েবসাইটটি গুগল এডসেন্স এর রেজিস্ট্রেশন করতে হবে বা আপনি করবেন । যদি গুগল এডসেন্স এর সকল নিয়ম কানুন আপনার ব্লগে ঠিক ঠাক থাকে অর্থাৎ কোন কপি পেস্ট না করেন এবং এই ধরনের আরও কিছু নিয়ম কানুন রয়েছে। সেগুলো যদি ঠিক ঠাক থাকে তাহলে গুগল এডসেন্স আপনার ওয়েবসাইটে অ্যাপ্রুভ করবে। পরে আপনাকে জিমেইলে জানিয়ে দিবে তখন আপনি আপনার সাইটে অ্যাড বসাতে পারবেন। যখন এডসেন্স পেয়ে যাবেন তখনি আপনার ব্লগ বা ওয়েবসাইটে অনলাইন ইনকাম আসা শুরু করবে।

গুগল এডসেন্স গুগলের এমন একটা সার্ভিস যা আমাদের ব্লগ ওয়েব সাইটে টেক্সট লিংক , ভিডিও এবং ইমেজ অ্যাডভার্টাইজমেন্ট দেখিয়ে তার বিনিময়ে অনলাইনে ইনকামের সুযোগ করে দিবে,সেখান থেকে আমাদের ইনকাম আসা শুরু করবে।

অনেকে শখ করে অনেক বিষয়ে লেখা লিখি করে থাকে। কিন্তু শকের বিষয়টি যদি পেশাগত কাজে লাগাতে পারেন, তবে  অনলাইনে ইনকাম করতে পারবেন। ব্লগিং করে আয় করার সুযোগ ও আছে, দুই উপায়ে ব্লগ থেকে আয় করা যায়।

একটি হচ্ছে নিজের ব্লগ সাইট তৈরি করে ও আরেকটি হচ্ছে ওয়ার্ডপ্রেস বা টাম্বলার প্ল্যাটফর্মের বিনামূল্য শুরু করতে পারবেন আপনি। আবার চাইলে নিজে ডোমেইন হোস্টিং কিনে ব্লক চালু করতে পারবেন আপনি। তবে আপনাকে একটা জিনিস মাথায় রাখতে হবে নিজে ব্লক চালু করতে গেলে কিছু বিনিয়োগ করা দরকার হবে, তখন আপনাকে কিছু টাকা বিনিয়োগ করতে হবে।

ডোমেইন, হোস্টিং, কিনতে হবে। নিজের ব্লগ শুরু করাটাই ভালো হবে। কারণ, এতে নিজের প্রয়োজন অনুযায়ী অনেক পরিবর্তন করার সুযোগ থাকবে। বিজ্ঞাপন, ফেসবুকে স্ট্যাটাস, আর্টিকেল, পর্যালোচনা প্রভৃতি নানান উপায়ে ব্লগ থেকে আয় করতে পারবেন। তবে ব্লগ লিখে আয় করতে গেলে রাতারাতি আয় আসবে না আপনাকে ধৈর্য ধরতে হবে ও সময় দিতে হবে?

এর জন্য প্রচুর সময় ধৈর্য ধরে থাকতে হবে আপনাকে। অনেকের ব্লগ থেকে আয় করতে কয়েক বছর পর্যন্ত লেগে যায় কিন্তু আপনি যদি দক্ষ হন তাহলে আপনি অল্প সময়ে অনলাইনে ইনকাম করতে পারবে। ব্লগে নিয়মিত কন্টেন আপডেট সহ সক্রিয় রাখতে আপনাকে ব্লগিং বা ওয়েবসাইটে কাজ করে যেতে হবে সব সময়।

বর্তমানে ব্লগ এবং গুগল এডসেন্স এই দুটি সার্ভিস ব্যবহার করে অনেক লোকেরা অনলাইনে এত টাকা ইনকাম করে আসছে ,যা আপনি ভাবতেও পারবেন না যে, তারা এত টাকা ইনকাম করে? তাই ব্লগ এবং গুগল এডসেন্স এর দ্বারা ইনকাম করতে চাইলে আপনার কোন কম্পিউটার বা ল্যাপটপ এর দরকার হবে না শুধুমাত্র একটা ভালো একটা এন্ড্রয়েড স্মার্ট ফোনই যথেষ্ট আপনার জন্য। যাতে অ্যান্ড্রয়েড স্মার্টফোন রেম ,রুম প্রসেসর যাতে একটু ভালো মানের।

 ২। ইউটিউব চ্যানেল থেকে অনলাইনে ইনকাম

ব্লগিং এ যেমন লিখালিখি করে গুগল এডসেন্সের মাধ্যমে ইনকাম হয় , ঠিক তেমনি আপনার যে কোন দক্ষতা রয়েছে, সেই গুলোকে ভিডিও আকারে তৈরি করে আপনার ইউটিউব  এ আপলোড করে এই গুগল এডসেন্স এর মাধ্যমে অনলাইনে ইনকাম করতে পারবেন?

যারা ব্লগ লিখে আয় করতে স্বচ্ছন্দ নন, তারা ক্যামেরার সাহায্য নিয়ে ভিডিও থেকে অনলাইনে ইনকাম করতে পারবেন। এর জন্য আপনাকে অবশ্যই সৃজনশীল আর ভালো সম্পাদনা জানতে হবে। নিজের ইউটিউব চ্যানেল খুলে সেখানে ভিডিও আপলোড করে সেখান থেকে ইনকাম করতে পারবেন?

আপনার চ্যানেল কোন ক্যাটাগরির এবং কোন বিষয়ে কাজ করবেন বা কি নিয়ে কাজ করতে আপনি আগ্রহী তা আপনাকে প্রথম ঠিক করতে হবে, কোন বিষয়ে কাজ করবেন। কোন ধরনের ভিডিও রাখবেন তা আগে থেকে ঠিক করে রাখতে হবে আপনাকে। যে বিষয়ে মানুষের আগ্রহ বেশি, সে বিষয়ের উপর ভিত্তি করে আপনাকেই ভিডিও বানিয়ে আপলোড করতে হবে। যদি সেই বিষয়ে ভিডিও না  রাখেন মানুষ তা দেখবে না। মানুষ যদি ভিডিও না দেখে তাহলে ইনকাম হবে না। তাই মানুষ যেগুলো বিষয় নিয়ে ভিডিও দেখতে আগ্রহী সে বিষয় গুলোর উপর আপনাকে ভিডিও বানিয়ে আপনার ইউটিউব চ্যানেলে আপলোড করতে হবে?

তাই বিষয়টি অনেকটাই ব্লগের মত। তবে এক্ষেত্রে কনটেন্ট হচ্ছে, ভিডিও। চ্যানেলের সাবস্ক্রাইবার ও ভিডিও দেখার সময় বাড়ালে আয়ের সম্ভাবনা বাড়বে বেশি। তাই অল্প সময়ে ভালো মানের ভিডিও বানাতে হবে আপনাকে, সেই বিষয়ে খেয়াল রাখবেন। প্রতি হাজার ভিউ এর হিসাবে গুগল থেকে আপনি অর্থ পাবেন।

বর্তমানে অনেক ইউটিউবার আছে যাদের বছরে মিলিয়ন মিলিয়ন ডলার ইনকাম করে। আমাদের সত্যিই অবাক লাগে,তো আপনি আর দেরি না করে যদি আপনি ইউটিউব থেকে ইনকাম করতে চান, তাহলে আপনার ইউটিউব এ জিমেইল আইডি সেট করা আছে কিনা ভাল করে দেখবে যদি না থাকে জিমেইল আইডি সেট করে নিবে,সেই অপশনে গিয়ে আপনি ইউটিউব থেকে ইনকাম করতে পারবেন।

আপনি যদি কোন বিষয়ে জানার থাকে তা আমাদের কমেন্ট বক্সে গিয়ে কমেন্ট করুন আমরা আপনার উত্তর দেব আপনাকে সাহায্য এবং সহযোগিতা করব?

Comments

You must be logged in to post a comment.

Related Articles