অনলাইন ইনকাম | কিভাবে অনলাইনে ইনকাম করা যায়

প্রিয় বন্ধুরা তোমরা সবাই কেমন আছো আশা করি নিশ্চয়ই ভালো আছো আজ তোমাদের মাঝে আলোচনা করব অনলাইন ইনকাম বিষয় নিয়ে, বর্তমানে বাংলাদেশের হাজার হাজার মানুষ অনলাইন ইনকাম Online Income এর মাধ্যমে তাদের কেরিয়ার এবং জীবিকা নির্বাহ করছে। অনলাইন ইনকামের বিষয়টি যদি তোমরা ভালোভাবে জানতে চাও তাহলে এই পোস্টটি ভাল ভাবে পড়ো।

বর্তমান বিশ্ব এখন প্রযুক্তির এর যুগে চলেছে, এখন মানুষ সকালে ঘুম থেকে উঠার পর থেকে শুরু করে রাতে ঘুমাতে যাওয়ার আগ মুহূর্ত পর্যন্ত প্রযুক্তির উপরে নির্ভরশীল বেশি। বর্তমানে মানুষের এই প্রযুক্তি ও অনলাইন নির্ভর মানসিকতা ইন্টারনেটে ইনকামের অনেক দার উম্মোচন করেছে।

এখন বর্তমান সময়ে খুব সহজেই মানুষ অনলাইন থেকে ভালো একটা পরিমানের অর্থ উপার্জন করছে। বর্তমানে দেশের হাজার হাজার মানুষ এখন এই অনলাইন ইনকাম Online Income এর উপরে নির্ভরশীল হয়ে উঠছে।

বন্ধুরা আপনারাও চাইলেই খুব সহজেই ইন্টারনেটের মাধ্যমে অনলাইন থেকে বিভিন্ন পদ্ধতিতে আপনিও ইনকাম করতে পারবেন। বন্ধুরা আপনারা কি সেটি চান, যদি আপনার উত্তর হ্যাঁ হয়, তাহলে আজকের এই পোস্টটি আপনার জন্য।

এই পোস্টটিতে আমরা অনলাইন ইনকাম বিষয় Online IncomIncome নিয়ে আলোচনা করবো এবং বন্ধুরা আপনাদের সাথে অনলাইনে আয় করার সেরা ১০টি উপায় আপনাদের মাঝে তুলে ধরবো। আপনি যদি এই আর্টিকেলটি সম্পূর্ণ ভালোভাবে লক্ষ্য করেন তাহলে আপনিও অনলাইন থেকে ইনকাম করার উপায় জানতে পারবেন।

১.মার্কেটিং করে আয়

এখন এই তথ্য প্রযুক্তির যুগে আমরা অনেকটাই বেশি প্রযুক্তির উপর নির্ভরশীল হয়ে থাকি, তাই আমাদের নিজেদের কেনা কাটাও এখন অনলাইন থেকে করে থাকি। সেক্ষেত্রে আপনি যদি হন সেলার তাহলে, তো অবশ্যই আপনার ইনকাম হবেই। এখন বর্তমান সময়ে অনেকেই শুধুমাত্র একটা পেজ খুলে পন্য বিক্রি করে মাসে লক্ষ লক্ষ টাকা ইনকাম করছে।

এখন বর্তমানে তো ইনভেস্ট না করে রিসেলিং করেও ভালো পরিমাণ একটা এমাউন্ট পাওয়া যাচ্ছে। সেক্ষেত্রে অবশ্যই আপনার ধৈর্য থাকতে হবে এবং আপনাকে অবশ্যই মার্কেটিং পলিসি বুঝতে হবে। এটি অনলাইনে আয় করার সহজ উপায় ২০২২

২.অ্যাফিলিয়েট মার্কেটিং

বন্ধুরা, Affiliate Marketing এই শব্দটা আমাদের কাছে এতটাও বেশি পরিচিত নয়। তবে Affiliate Marketing পরিচিত না হলেও এই মার্কেটিং এর মাধ্যমে যথেষ্ট পরিমান টাকা ইনকাম করা সম্ভব। আসুন আমরা সবাই Affiliate Marketing সম্পর্কে সংক্ষেপ জানি।

বর্তমান অনলাইন যুগে হাজার হাজার মার্কেট প্লেস এ পন্য বিক্রি হয়। আমরা এদেরকে  ই-কমার্স হিসেবে বলে থাকি। বন্ধুরা, আবার এসব ই কমার্স e-commerce সাইট এর প্রত্যেকটি সাইটে অ্যাফিলিয়েট মার্কেটিং Affiliate Marketing নামে একটি অপশন রয়েছে। সেখানে আপনার একটি একাউন্ট তৈরি করতে হবে। এবং তাদের পন্যের লিংক কপি করে সোশ্যাল মিডিয়ায় শেয়ার করতে হবে।

চাইলে ক্লিক করে পড়ে নিতে পারেন,

অ্যাফিলিয়েট মার্কেটিং কি? সঠিক এক্সাম্পল এফিলিয়েট মার্কেটিং

বন্ধুরা, আপনার সেই শেয়ার করা লিংক থেকে কেও যদি পন্যটি ক্রয় করে, তাহলে আপনি আপনার কমিশনটি পেয়ে যাবেন। বন্ধুরা, তবে আপনাকে অ্যাফিলিয়েট মার্কেটিং Affiliate Marketing এর জন্য অবশ্যই ভালো মার্কেটিং সম্পর্কে জানতে হবে।

Affiliate Marketing সম্পর্কে না জেনে ইনকাম করা সম্ভব নয়। আপনাকে অবশ্যই Affiliate Marketing মার্কেটিং সম্পর্কে আগে থেকে জেনে নিতে হবে কিভাবে কি করলে কি হয় ইত্যাদি। বর্তমানে এখন অনলাইন বা অফলাইনে বিভিন্ন ইন্সটিটিউট এ ধরনের কোর্স করিয়ে থাকেন। সেখান থেকে Affiliate Marketing কোর্স শিখে নিয়েও আপনি কাজ শুরু করতে পারেন। এবং অনলাইন থেকে টাকা ইনকাম করতে পারেন।

৩.রেফার করে ইনকাম

বন্ধুরা বর্তমানে এখন অনেক সহজ ভাবে ইনকাম এর একটি মাধ্যম হচ্ছে অ্যাপ রেফার করে ইনকাম করার।

এই যে, বিকাশ এর অফার চালু আছে আপনি রেফার করলে আপনার রেফারে থেকে কেউ apps ইন্সটল করলে ও লগ ইন করলে একটি নির্দিষ্ট পরিমাণ টাকা আপনার একাউন্টে এসে জমা হবে এবং সেটা আপনি চাইলে সঙ্গে সঙ্গে উইথড্র দিতে পারেন।

এই বিকাশ এর মত আরো অনেক app আছে। বাংলাদেশি হলে আপনারা টাকা বিকাশেই নিতে পারবেন।

৪.ছবি তুলে ইনকাম

বর্তমান যুগ এখন স্মার্ট ফোন ব্যাবহার করার যুগ স্মার্ট ফোন ব্যবহার করে না এমন লোকের সংখ্যা খুবই কম। আপনার হাতেই তো রয়েছে একটি স্মার্টফোন, আর আপনার হাতে থাকা স্মার্টফোনে অবশ্যই ভালো মানের ক্যামেরা রয়েছে। বর্তমানে এখন কোনো কোনো মোবাইলে তো একাধিক ক্যামেরাও দেখা যায়।

বন্ধুরা, আপনার হাতে থাকা সেই ফোনটি ব্যাবহার করেই আপনি মোবাইল দিয়ে অনলাইন থেকে ভালো পরিমাণ টাকা ইনকাম করতে পারবেন। অবিশ্বাস্য হলেও বর্তমানে এটা সত্য কথা আপনি আপনার হাতের স্মার্টফোন মোবাইলটি দিয়ে আপনার আশে পাশের কোনো সুন্দর দৃশ্য এর এর ছবি তুলতে পারেন।

আপনার হাতে থাকায় স্মার্টফোন মোবাইল এর ক্যামেরা বা যে কোনো ক্যামেরা দিয়েই সম্ভব, তারপর সেই ছবিটাকে সুন্দর করে ভালোভাবে এডিট করে অথবা এডিট ছাড়াই ওয়েবসাইটে raw ফাইলসহ আপলোড করে আপনি 60 -700 ডলার পর্যন্ত অনলাইন থেকে টাকা ইনকাম করতে পারেন।

বন্ধুরা আপনারা যদি অল্প স্বল্প এডিটিং জানেন তাহলে তো আরও সহজ হয়ে যাবে কাজটি আপনার জন্য। অনলাইনে ছবি বিক্রির জন্য অনলাইনে এখন বিভিন্ন ওয়েব সাইট রয়েছে । তাদের মধ্যে জনপ্রিয় হলো Shutterstock, 500px, Envato ইত্যাদি এবং এরাই বর্তমানে ফটোগ্রাফার দের সব থেকে বেশি পে করে থাকে।

৫.ব্লগিং করে ইনকাম

ব্লগিং বর্তমানে অনলাইন আয়ের বেশ পুরাতন হলেও এটা অনেক কার্যকরী একটা জনপ্রিয় পদ্ধতি। এই পদ্ধতিতে বেশ ভালো পরিমাণ টাকা অনলাইন থেকে প্রতি মাসেই পেতে পারেন। এজন্য প্রথমত আপনাদের দরকার মেধা শ্রম ও ধ্যর্য।

ব্লগ হচ্ছে, একটি নিউজপেপার এর মত। আপনার জানা বিষয়টি আপনি ব্লগে লিখবেন। সেই বিষয়টি যার যার জানা দরকার সে আপনার ব্লগ থেকে পড়বে। এই যে আপনি এখন অনলাইনে ইনকাম সম্পর্কে এই আর্টিকেলটি পড়ছেন এটিও একটি ব্লগ/ওয়েবসাইট। প্রতিটা মানুষই কোনো না কোনো বিষয় নিয়ে অনলাইনে এ জানাশোনার জন্য আসে।আপনি যে বিষয় নিয়ে পিসি দক্ষ এবং এ জানেন সেই বিষয় এর উপর আর্টিকেল লিখে শুরু করতে পারেন এবং আপনারা অনলাইন থেকে টাকা ইনকাম করুন।

বন্ধুরা, এখন আপনার মনে হয়তো প্রশ্ন আসছে যে, লিখবো কোথায়,

হ্যা বন্ধুরা আমি উত্তর দিচ্ছি, আপনি কোনো খরচ ছাড়াই একটি ব্লগ বা ওয়েবসাইট বানিয়ে নিতে পারবেন। তাই আপনি কিছু টাকা খরচ করে ডোমেইন কিনে হোস্টিং ঠিক করে আপনার ব্লগ বানিয়ে আপনি আর্টিকেল লিখতে পারেন।

আরো পড়ুন..

তবে অনেকে আছে এতটুক ধারণা থাকার পরেও শুরু করছেন না গুগল এডসেন্স দিবে কিনা সেই ভয়ে। বন্ধুরা, তবে ভয়ের কোন কারণ নেই মানসম্মত লিখা হলে অবশ্যই আপনাকে গুগোল এডসেন্স দিবে।

৬.ফ্রিল্যান্সিং করে ইনকাম

বন্ধুরা, বর্তমানে সবচাইতে বেশি লোক যেখানে কাজ করে টাকা ইনকাম করছে সেটি হচ্ছে ফ্রিল্যান্সিং। এতে মাসে হাজার হাজার টাকা ইনকাম করাও সম্ভব। সরকার তো ফ্রিল্যান্সিং এ সবাইকে উৎসাহ দিয়েছে।

হয়তো বা আগামী দিনে চাকরির চেয়েও এটি হয়ে উঠবে একটি জনপ্রিয় পেশা। ফ্রিল্যান্সিং এর জন্য আপনার ইন্টারন্যাশনাল মার্কেটপ্লেসে একটা একাউন্ট তৈরি করতে হবে। যেমনঃ ফাইবার, ফ্রিল্যান্সার ইত্যাদি।

এতে আপনাদেরকে বিদেশি বায়াররা অনলাইনে কাজের জন্য আপনাকে ভারা করবে এবং আপনারা তাদের সেই কাজ সুন্দরভাবে করে দিয়ে টাকা ইনকাম করতে পারবেন। আপনি যদি বায়ারদের কাজ ভালো ও সুন্দর ভাবে তাদের কাজ করে দিতে পারলেই তারা আপনাকে ভালো একটা এমাউন্ট দিবে।

এবং আপনারা সেটা ব্যাংক একাউন্ট এ নিয়ে আনতে পারবেন। তবে ফ্রিল্যান্সিং করতে হলে আপনাকে অবশ্যই যেকোনো একটি বিষয় এ পারদর্শী ও দক্ষ হতে হবে যেমনঃ Graphics Design, Photo Editing, Web Design, Website Making, Copywriting, Content Writing,Logo Design), ইত্যাদি। আপনি যে বিষয় ভালো দক্ষ বা অভিজ্ঞতা হতে পারেন সেই বিষয় শুরু করতে পারেন।

আপনারা যখন ফ্রীলান্সিং শুরু করবেন তখন শুরুর দিকে মার্কেট প্লেসে কাজ পেতে সমস্যা হলেও পরবর্তীতে আর আপনাদের কোন সমস্যা হবে না, এ জন্য আপনাদেরকে লেগে থাকতে হবে দির্ঘ সময়।

৭.অনলাইনে বাজি ধরে ইনকাম

বন্ধুরা, অনেকেই আছে অনলাইন থেকে বাজি ধরে টাকা ইনকাম করে আসছে। যেমন, ক্রিকেট, ফুটবল, হকি, রেসলিং ইত্যাদি বাজি ধরে টাকা ইনকাম করে থাকে।

ক্লিক করে পড়ে নিন..

অনলাইনে বাজি ধরে টাকা ইনকাম | ইনকাম করার সবচেয়ে সেরা ওয়েবসাইট

৮.সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে আয়

বর্তমান ইন্টারনেটের যুগে সোশ্যাল মিডিয়া যেমন, ফেসবুক, টুইটারইনস্টাগ্রাম, স্ন্যাপচ্যাট প্রচুর ব্যাবহার হচ্ছে। তবে এ গুলো শুধু চ্যাটিং এর জন্য নয় বা সময় অপচয় এর জন্য নয়।

এগুলোকে এখন অনেকেই কাজে লাগিয়ে অনলাইন থেকে ইনকাম করছে এবং চাইলে আপনি ইনকাম করতে পারবেন। এজন্য আপনার ফেসবুক পেজ তৈরি করতে হবে এবং আপনার ফেসবুক পেজে প্রচুর পরিমানে ফলোয়ার থাকতে হবে। এতে আপনি ঘরে বসে খুব সহজে বিভিন্ন বিজ্ঞাপন কোম্পানির কাছ থেকে নিয়ে ফেসবুকের মাধ্যমে টাকা আয় করতে পারবেন।

যেমন, যেকোন কোম্পানির পন্যের প্রচারের জন্য এখন বর্তমানে স্যোশাল প্লাটফর্ম খুবই জনপ্রিয়। তবে সোশ্যাল মিডিয়ায় ফ্যান-ফলোয়ার তৈরিসহ তাঁদের ধরে রাখতে প্রচুর ধৈর্য থাকাটা আপনার অনেক বেশি জরুলি।

৯.ইউটিউব থেকে আয় 

বন্ধুরা আপনাদের যদি কোন প্রতিভা থাকে, আপনার মাঝে যদি কোন সুপ্ত প্রতিভা থাকে, এবং আপনি যদি ভিডিওর মাধ্যমে আপনার প্রতিভা সবার কাছে ভিডিও এর মাধ্যমে প্রকাশ করতে পারেন। সেটি হল ইউটিউবে ভিডিও আপলোড করে ইনকাম, অনলাইন থেকে ইনকাম করাটা হবে আপনার জন্য সহজ একটি মাধ্যম।

আরো পড়ুন..

তবে বর্তমানে, ইদানিং ইউটিউবের কিছু নিয়ম কানুন পরিবর্তন করেছে। আর সেগুলি হচ্ছে, আপনার সর্বনিম্ন এক হাজার সাবস্ক্রাইব হতে হবে এবং এক বছরে চার হাজার ভিউ থাকতে হবে তবে আরও অনেক কিছু। তবে প্রথম অবস্থায় এটি পূরণ করা খুব বেশি কঠিন, বন্ধুরা আপনার ভিডিওগুলো যদি আপনার ভিডিও গুলোতে দর্শকদের কাছে ভালো মনে হয় প্রয়োজনীয় কোন বিষয় থাকে তাহলে সাবস্ক্রাইব এবং ভিউ আপনি অল্প সময়ে পেয়ে যাবেন।

অনেকেই এটা মনে করেন যে, শুধু মাত্র ফালতু বিষয় কিন্তু না , বর্তমানে এখন ফানি ভিডিও গুলোতে দর্শকদের ভিউ বেশি হয়। এই কথাটি কিছু সময়ের জন্য সত্য কিন্তু এসব ভিডিও নিয়ে একজন ইউটিউবার খুব বেশিদিন টিকে থাকতে পারে না।

তাই আমরা আপনাদের কাছে অনুরোধে থাকবে ভিউ অথবা সাবস্ক্রাইব পেতে একটু সময় লাগলেও আপনি ভাল এবং শিক্ষনীয় বিষয় নিয়ে ভিডিও তৈরী করুন। আর ভুলেও কারও ভিডিও কপি করে নিজের বলে চালিয়ে দিবেন না এতে চ্যানেল বাতিল হয়ে যাবে।

১০.বাংলা আর্টিকেল লিখে ইনকাম

বন্ধুরা আপনারা যদি কেউ আর্টিকেল লিখে ইনকাম করতে চান তাহলে বিশ্বাসযোগ্য ওয়েবসাইট হলো হট ইনকাম সাইট এখানে আপনার আর্টিকেল লিখে ইনকাম করতে পারবে। তাই আর্টিকেল লিখে ইনকাম করতে চাইলে hotnewsall.com সাইটটি ভিজিট করে দেখে নিন। সেখানে ইনকামের সমস্ত বিষয় দেওয়া আছে কি কিভাবে আপনারা ইনকাম করবেন এখানে ক্লিক করে দেখে নিন ?

Comments
md munnakhan - Mar 1, 2022, 9:23 AM - Add Reply

01879175810

You must be logged in to post a comment.

You must be logged in to post a comment.

Related Articles