অনলাইনে আয় করুন মোবাইলে প্রতিদিন ১০০ টাকা

মোবাইল দিয়ে টাকা ইনকাম:মোবাইল দিয়ে অনলাইনে ইনকাম করতে আজই ভিজিট করুন এই লিংকে।

https://workupjob.com/?a=290965 

প্রথমে এই লিংকটিতে কিক্ল করুন। তারপর ঢুকে আপনার জিমেইল আইডি দিয়ে রেজিষ্ট্রেশন করে নিবেন। তারপর লগইন করে ঢুকবেন।

ভিতরে ঢুকে আপনি মোবাইলে বাম সাইটে উপরে থ্রি বাটন দেখতে পাবেন, সেখানে কিক্ল করবেন। কিক্ল করে অনেক অফসন দেখতে পাবেন।সবার প্রথম অফসন টি কিক্ল করুন, সেটা লাল কালারের  ভেরিফাই  লেখা আছে, সেখানে কিক্ল করুন। 

কিভাবে ভেরিফাই করবেন।

আপনি ভেরিফাই করতে পারবেন আপনার জন্ম সনদ,আইডি কাড,ও ড্রাইভিং লাইসেন্স দিয়ে।

তারপর আপনি ওখানে সমস্ত বিষয় সম্পর্কে রয়েছে, জেনে বুঝে কম্পলিট করবেন।আপনার ভেরিফাই হতে দুই থেকে তিন দিন সময় লাগতে পারে। ভেরিফাই হয়ে গেলে আপনি ইনকাম করতে পারবেন।

প্রতি দিন ১ ঘন্টা কাজ করে আপনি ১০০ টাকা ইনকাম করতে পারবেন।যত বেশি কাজ করবেন তত বেশি ইনকাম করতে পারবেন।

আপনার একাউন্টে ৩০০ টাকা হলেই আপনি বিকাশে ও নগদ এর মাধ্যমে টাকা তুলতে পারবেন। আপনি যদি পেমেন্ট প্রুফ দেখতে চান তাহলে ফেসবুক পেজ থেকে দেখে নিতে পারবেন। 

বাংলায় আটিকেল লিখে টাকা ইনকাম 

আজকে আমি বাংলা আটিকেল লেখার বেস্ট দুটো  সাইট  সম্পর্কে বলবো। 

১। জে আইটি ডট কম 

২। hotnewsall.com

১। জে আইটি ডট কম থেকে টাকা ইনকাম 

 আপনি  যদি  ঘরে বসে কোন বিষয়ে লিখতে পছন্দ করেন তাহলে জে আইটি আর্নিং প্রোগ্রাম-এর টপিকতালিকা থেকে আপনার পছন্দের বিষয়টি সম্পর্কে লিখে  আয় করতে পারবেন খুব সহজেই। আপনি যে-সব বিষয় সম্পর্কে লিখতে পারবেন। 

ইলেক্ট্রিক ও ইলেক্ট্রনিক্স , বীমা /ইন্সুরেন্স, আইন, মর্গেজ, নোটারী, ভিডিও কল, ম্যাসেজিং, চ্যাটিং, কল কনফারেন্স, অনলাইন পড়াশুনা, বিদেশে উচ্চ শিক্ষা , অনলাইন ক্লাস, সাইন্স ও সাকসেস স্টোরি।  মার্কেটিং, অনলাইন ব্যবসা, ই-কমার্স , কম্পিউটার ও মোবাইল, সফটওয়্যার, এন্ড্রোয়েড এপ, গেমস, বিট কয়েন, ক্রিপ্রোকারেন্সি,

অনলাইন ট্রেডিং, টেকনোলজি, নেটওয়ার্ক, ইন্টারনেট অফার, সিম কার্ড অফার, সাইবার নিরাপত্তা, ডাটা রিকভারী, ব্যাংকিং, মাস্টার কার্ড , ভিসা কার্ড, ডেবিট ক্রেডিট ও একাউন্স, লোন বা অনলাইন ইনকাম, ব্লগিং এন্ড ওয়েবসাইট, ইউটিউব, ওয়ার্ডপ্রেস, ব্লগার, এস.ই.ও, ডিজিটাল মার্কেটিং, সোশ্যাল মিডিয়া মার্কেটিং, ইমেইল মার্কেটিং, এফিলিয়েট ইত্যাদি। 

রেফার করে টাকা ইনকাম করতে পারবেন। মেম্বার যখন রেজিস্টার করবে তার ড্যাশবোর্ডে অটোমেটিক একটি রেফারেল লিংক তৈরী হয়ে যাবে।

এবং সেই লিঙ্ক থেকে যত মেম্বার আমাদের ওয়েবসাইটে রেজিস্ট্রেশন করবে, রেজিষ্ট্রিকৃত মেম্বার এর ইনকামের 20% আপনার একাউন্টে জমা হয়ে যাবে।  ।

আপনার রেফারেল লিংক থেকে যারা রেজিষ্ট্রেশন করেছে তারা যত আয় করবে আপনি তাদের আয়ের 20% পাবেন।

আপনার লেখা আর্টিকেল প্রতি ১ হাজার ইউনিক ভিউয়ে ১হাজার টাকা থেকে ২ হাজার  টাকা পর্যন্ত পাবেন। আপনার  লেখা সকল আর্টিকেল মিলে যদি দিনে ১ হাজার ভিউ হয় তাহলে আপনি পাবেন দেশে ভেদে ১হাজার টাকা থেকে দুই হাজার  টাকা পর্যন্ত।

২। hotnewsall.com থেকে টাকা ইনকাম

জে আইটি এবং hotnewsall.com একই। কিন্তু জে আইটিতে ৩৫০ ওয়াড এবং hotnewsall.com এ ৪০০  ওয়াট লিখতে হয়। আপনি কোন জায়গায় থেকে কপিরাইট করতে পারবেন না। কপিরাইট হলে লেখা পোস্ট করা বা approved হবে না। নিজের থেকে লিখতে পারবেন।

যদি আপনি আটিকেল লিখে টাকা ইনকাম করতে চান তাহলে হট নিউজ অল এ কিক্ল করুন এবং রেজিষ্ট্রেশন করে লগইন করে আপনি কাজ শুরু করতে পারবেন। 

মোবাইল অনলাইন আয়

অনলাইনে আয়ের  মাধ্যম গুলো হলোঃ

১। ব্লগিং করে আয়

২। গুগল এডসেন্স থেকে আয়

৩। ইউটিউব হতে ইনকামঃ

৪। অ্যাপস ডেভেলপমেন্টঃ

৫। এফিলিয়েট মার্কেটিং করে আয়ঃ

৬। ই কমার্স ব্যবসাঃ

৭।অনলাইন ক্লাসঃ

৮। ডিজিটাল প্রোডাক্ট বিক্রয়ঃ

৯্। সিপিএ মার্কেটিং

১০। ফ্রিল্যান্সিংঃ

১১। আর্টিকেল লিখে আয়ঃ

১২। work up

অনলাইন ইনকাম  ফ্রিল্যান্সিং।

ফ্রিল্যান্সিং শব্দটির সাথে কমবেশি সবাই পরিচিত হয়ে থাকবেন। মূলত কোনো প্রতিষ্ঠানে প্রচলিত ধারার চাকুরী না করে বরং স্বাধীন ব্যক্তি হিসেবে কাজ করার পেশাকে বলা হচ্ছে ফ্রিল্যান্সিং।

বর্তমানে অনলাইনে ইনকাম করার সবচেয়ে আলোচিত উপায় হচ্ছে ফ্রিল্যান্সিং। ফাইভার, আপওয়ার্ক এর মত ফ্রিল্যান্সিং প্ল্যাটফর্মগুলো ফ্রিল্যান্সারদের এই যাত্রাকে আরো সহজ করে দিয়েছে।বর্তমানে ঘরে বসেই পৃথিবীর যেকোনো প্রান্তের ক্ল্যায়েন্টের কাজ করা সম্ভব হচ্ছে ফ্রিল্যান্সিং প্ল্যাটফর্মগুলোর মাধ্যমে।

এছাড়াও ফ্রিল্যান্সিং এর ক্ষেত্রে একজন ফ্রিল্যান্সার এর কাজের স্বাধীনতা থাকায় অনেকেই এই পেশাকে অনলাইনে ইনকাম করার শ্রেষ্ঠ পথ বলে মনে করেন।

অনলাইনে আয়ের ক্ষেত্রে ফ্রিল্যান্সিং কাজ করার বিষয়টি সবচেয়ে জনপ্রিয়। বিভিন্ন ফ্রিল্যান্সারদের দক্ষতার ওপর ভিত্তি করে ফ্রিল্যান্স কাজের সুযোগ দেয় কয়েকটি ওয়েবসাইট। সেখানে অ্যাকাউন্ট খুলে দক্ষতা অনুযায়ী কাজের জন্য আবেদন করতে হয়। কাজদাতা তাদের প্রয়োজন অনুযায়ী যোগাযোগ করে ফ্রিল্যান্সারকে কাজ দেয়।

কয়েকটি ওয়েবাসাইটে কাজের দক্ষতার বিবরণ জানাতে হয় অবশ্যই, যাতে ক্রেতা সরাসরি যোগাযোগ করতে পারেন। এসব সাইটের মধ্যে ফাইভার ডটকম, আপওয়ার্ক ডটকম, ফ্রিল্যান্সার ডটকম  ফ্রিল্যান্সিং কাজ পাওয়া যায়। ঘণ্টায় ৫ থেকে ১০০ ডলার পর্যন্ত আয় করা যায় এসব সাইট থেকে। মনে রাখতে হবে যে, কাজ শেষ করার পর কাজদাতার অনুমোদন পেলেই তবেই অর্থ ছাড় দেবেন তিনি।

এ ক্ষেত্রে কাজের মানের ওপর কাজদাতা রেটিং দিতে পারেন। গ্রাহকের পছন্দ না হওয়া পর্যন্ত কাজ করে দিতে হয় ফ্রিল্যান্সারকে। বিভিন্ন অনলাইন পেমেন্ট মাধ্যম ব্যবহার করে অর্থ আনা যায় খুব সহজেই।

Comments

You must be logged in to post a comment.

Related Articles